২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ শনিবার বিকাল ৩টায় খুলনার গোলকমণি শিশু পার্কে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের খুলনা বিভাগীয় সমাবেশ

Poster

তারিখ ঃ  ২৮/০৯/২০১৩ প্রেস বিজ্ঞপ্তি

শ্রমিক-কৃষক-জনগণের রাষ্ট্র, সরকার ও সংবিধান প্রতিষ্ঠার লড়াইকে অগ্রসর করুন- জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট

আজ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৩ শনিবার বিকাল ৩টায় খুলনার গোলকমণি শিশু পার্কে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের খুলনা বিভাগীয় সমাবেশ সংগঠনের সহ-সভাপতি তোজাম্মেল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের সাধারণ সম্পাদক আশিকুল আলম চৌধুরী, কৃষক সংগ্রাম সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি শ্যামল কুমার ভৌমিক, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম শামীমুল হক, এনডিএফ’র যশোর জেলা সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, কুষ্টিয়া জেলা সাধারণ সম্পাদক মোক্তারুল ইসলাম মুক্তি, খুলনা জেলা সভাপতি আবুল হোসেন, নড়াইল জেলা আহ্বায়ক আক্তার হোসেন, সাতক্ষীরা জেলার তালা থানা সভাপতি আব্দুল হাকিম, কৃষক সংগ্রাম সমিতির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সম্পাদক ও খুলনা জেলা সভাপতি তাপস বিশ্বাস, ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও খুলনা জেলা সভাপতি নাজিউর রহমান নজরুল প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, বর্তমান ক্ষমতাসীন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মহাজোট সরকার অতীতের সরকারগুলোর ন্যায় দেশ, জাতি ও জনগণের স্বার্থকে উপেক্ষা করে সাম্রাজ্যবাদের পরিকল্পনা ও স্বার্থরক্ষা করে চলেছে। ফলে শ্রমিক-কৃষক-জনগণের উপর শোষণ-নিপীড়ন-নির্যাতন বৃদ্ধি পেয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত করে তুলেছে। দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল আজ ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের মুখে। ভারত কর্তৃক ফারাক্কা বাধের কারণে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের নদ-নদী ভরাট হয়ে শুকনা মৌসুমে জেলাগুলিতে পানির অভাবে মরুময়তা সৃষ্টি হচ্ছে এবং দক্ষিণাঞ্চলের অল্প কৃষিতে ব্যাপক অঞ্চলে স্থায়ী জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। ওয়াপদা বাধ এ অঞ্চলের ভূমি গঠনের পথে বাধা সৃষ্টি করায় জলাবদ্ধতা ও লবণাক্ততা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। উপরোন্তু সরকার বাগেরহাটের সুন্দরবন সংলগ্ন রামপালে ভারতের সাথে যৌথ উদ্যোগে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করার ঘোষণা দিয়েছে যা সুন্দরবনকে ধ্বংস করবে। এদেশের জনগণের চাওয়া-পাওয়াকে উপেক্ষা করে সরকার এই প্রকল্প বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়েছে। আজকের সমাবেশ থেকে অবিলম্বে এই প্রকল্প বন্ধ করার জোর দাবী জানানো হচ্ছে। বক্তারা আরো বলেন, বাংলাদেশ সৃষ্টির দীর্ঘ ৪২ বৎসরে শোষক শ্রেণীর দলসমূহ ক্ষমতাসীন থাকায় শ্রমিক-কৃষক-জনগণের মুক্তি আসেনি। আজ প্রয়োজন শোষক শ্রেণীর বিপরীতে শ্রমিক-কৃষক-জনগণের রাষ্ট্র, সরকার ও সংবিধান প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে শ্রমিক শ্রেণীর নেতৃত্বে শ্রমিক-কৃষক মৈত্রীর ভিত্তিতে জাতীয় গণতান্ত্রিক বিপ্লব এর সংগ্রামকে অগ্রসর করা।

বার্তা প্রেরক

বিএম শামীমুল হক

সাংগঠনিক সম্পাদক

মোবাঃ ০১৭-১২৭৫-২৮৫৭।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *