২৮ জুন বৃহস্পতিবার জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট-এর সিলেট বিভাগীয় সভা- বন্যা সমস্যার সমাধানে নদনদী খনন ও বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ ও পুণর্বাসনের দাবি

NDF-Slt Divission

প্রেস বিজ্ঞপ্তি তাং- ২৯ জুন ২০১৮

জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট-এর সিলেট বিভাগীয় সভা
বন্যা সমস্যার সমাধানে নদনদী খনন ও বন্যার্তদের জন্য ত্রাণ ও পুণর্বাসনের দাবি

জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট-এনডিএফ সিলেট বিভাগীয় নেতৃবৃন্দের এক সভায় সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ জনসাধারণের পাশে দাড়ানোর জন্য সংগঠনের নেতাকর্মী শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি আহবান জানান। ২৮ জুন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিলেট শহরের সুরমা মার্কেটস্থ এনডিএফ কার্যালয়ে সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার জেলা এনডিএফ’র নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সিলেট বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির। সভায় বক্তব্য রাখেন এনডিএফ সিলেট জেলা কমিটির সভাপতি এডভোকেট কুমার চন্দ্র রায়, সুনামগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি বাদল সরকার, মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সভাপতি শহীদ সাগ্নিক, সিলেট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়দীপ দাস চম্পুু, মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রজত বিশ্বাস, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ সিলেট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ ছাদেক মিয়া, বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতি সিলেট জেলা কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক সুজন মিয়া, জাতীয় ছাত্রদল শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সৌরভ, মালনীছড়া রাবার শ্রমিক সংঘের সভাপতি জয় মাহাত্ম কুর্মী ও শ্রমিকনেতা রমজান আলী পটু প্রমূখ। সভায় বক্তারা বলেন, বিগত বছরের কয়েক দফা বন্যার ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠার আগেই চলতি বছর পাহাড়ী ঢলে মনু, ধলাই, কুশিয়ারা নদীর একাধিক ভাঙ্গনের ফলে সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায় মৌলভীবাজার ও সিলেট জেলার বিস্তৃর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সৃষ্টি করেছে। তীব্র পানির স্রোতে জনসাধারণের ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, স্কুল, কৃষি জমি, মৎস্য খামার, গবাদি পশু ভাসিয়ে নিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ জনসাধারণের জন্য জরুরি ভিত্তিতে ত্রাণ ও পুনর্বাসনের প্রয়োজন হলেও সরকারিভাবে যে ত্রাণ সামগ্রী প্রদান করা হচ্ছে তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই সামান্য। আবার সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ তুলনামূলক দুর্গম এলাকায় ত্রাণ বিতরণ না করার যেমন অভিযোগ রয়েছে তেমনি নির্বাচনী প্রচারণাকে সামনে রেখে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে ত্রাণ বণ্টন ও লুটপাটেরও অভিযোগ রয়েছে। নদ-নদী, খাল-বিল ভরাট, অপরিকল্পিতভাবে ব্রিজ, কালভার্ট, বাঁধ নির্মাণ এবং নদী ও খাল অবৈধভাবে দখল করে বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণের কারণে প্রতি বছর বন্যার সৃষ্টি হলেও সরকার এ ব্যাপারে কার্যকর কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় বন্যার এতো ভয়াবহতা ও ক্ষয়ক্ষতি হয়ে থাকে। সভা থেকে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ জনসাধারণের মধ্যে পর্যাপ্ত ত্রাণ সুষ্ঠুভাবে বণ্টন, ত্রাণ বণ্টনে সকল অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও লুটপাট বন্ধে যথাযথ তদারকির ব্যবস্থা, দ্রুততম সময়ে পুনর্বাসন, ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের ক্ষতিপূরণ প্রদান, বিনা মূল্যে সার, বীজ, কীটনাশক ও সুদমুক্ত কৃষি ঋণ প্রদান, দূর্গত এলাকায় বিশুদ্ধ পানীয় জল ও চিকিৎসার ব্যবস্থা এবং বন্যা সমস্যার সমাধানের লক্ষ্যে মনু, ধলাই, কুশিয়ারা, খোয়াইসহ সকল নদ-নদী, খাল-বিল খনন করার দাবি জানানো হয়। সভায় সাধ্য অনুযায়ী বন্যা দূর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও শুভানূধ্যায়ীদের প্রতি আহবান জানানো হয় এবং সাংগঠনিক উদ্যোগে বন্যা দূর্গতের মধ্যে পানি বিশুদ্ধকরণ ঔষুধ বিতরণ ও মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালনা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়।

বার্তা প্রেরক

শাহজাহান কবির

সহ-সাধারণ সম্পাদক

০১৭-১২০৫-৮২৪৫

 

 

 

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *